[ আমরা সম্মিলিত অনুশীলনের ভিত্তিতে, মানুষ ও মনুষ্যত্বের মুক্তিতে, মানবীয় মর্যাদা প্রতিষ্ঠার মহতী সংগ্রামে- আমাদের আদর্শিক সত্তা ও সমন্বয়ক দিশারী শ্রদ্ধেয় ‘বড়দা (আব্দুর রাজ্জাক মুল্লাহ রাজু শিকদার)’র নির্দেশিত পথই- সংগঠন ও সংগঠন কাঠামোর ক্ষেত্রে মতাদর্শিক দিশা হিসেবে গৃহীত; সেই আলোকেই অত্র প্রকাশনা অনুমোদিত। ]



মেনু

পরিচিতি


আবু লায়েস মুন্না

জন্মঃ ৩১-১২-১৯৭৮ খ্রিঃ

মাতাঃ মোসাঃ গোলেসা খাতুন

পিতাঃ আবেদ আলী মন্ডল

 

স্থায়ী ঠিকানাঃ

গ্রামঃ ঢাকলহাটি

ওয়ার্ড নং- ৩

শেরপুর পৌরসভা, শেরপুর- ২১০০

 

প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষাজীবনঃ

প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা শিকড়ঃ ১০১নং ঢাকলহাটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, শেরপুর টাউন, শেরপুর।
এসএসসি- প্রথম বিভাগ, বিজ্ঞান শাখা, ১৯৯৩ খ্রিঃ, শেরপুর গাজীর খামার উচ্চ বিদ্যালয়, শেরপুর।

এইচএসসি- দ্বিতীয় বিভাগ, মানবিক শাখা, ১৯৯৫ খ্রিঃ, নরসিংদী সরকারী কলেজ, নরসিংদী।

 

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়- আইন বিভাগে অধ্যায়নরত ছিলেন। পরবর্তীতে সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত অনুসারে- প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষায়তন ছেড়ে এসে, সংগঠন অনুশীলনকেই একমাত্র শিক্ষা-দীক্ষা ও দায়িত্ব হিসেবে গ্রহণ করেন।

 

সংগঠন সম্পৃক্ততার সময়ঃ আনুষ্ঠানিক ৩০শে এপ্রিল, ১৯৯৮ খ্রিঃ।

কাঠামোগত অবস্থানঃ ‘বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট’ এর প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক এবং তিনি কাঠামোগত স্থায়ীত্বের প্রতিভূ (একমাত্র তিনি ছাড়া সংগঠন প্রতিষ্ঠাকালীন বিগত ১৮ বছরের অধিক সময় ধরে চলে আসা সকল দায়িত্ব প্রাপ্তরা অস্থায়ী ছিলেন) হিসেবে পরিচালনা বোর্ড প্রধান এর দায়িত্ব পালন করেন এবং ২৯শে জুলাই ২০১৬ খ্রিঃ সংগঠন প্রধান এর দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।