[ আমরা সম্মিলিত অনুশীলনের ভিত্তিতে, মানুষ ও মনুষ্যত্বের মুক্তিতে, মানবীয় মর্যাদা প্রতিষ্ঠার মহতী সংগ্রামে- আমাদের আদর্শিক সত্তা ও সমন্বয়ক দিশারী শ্রদ্ধেয় ‘বড়দা (আব্দুর রাজ্জাক মুল্লাহ রাজু শিকদার)’র নির্দেশিত পথই- সংগঠন ও সংগঠন কাঠামোর ক্ষেত্রে মতাদর্শিক দিশা হিসেবে গৃহীত; সেই আলোকেই অত্র প্রকাশনা অনুমোদিত। ]



মেনু

৭ দিনের সংবাদ দুনিয়া

 
দেশে এখন কোনও সরকার নেইঃ পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা
০৮-০১-২০১৭

“দেশে এখন কোনও সরকার নেই। গণতান্ত্রিক অধিকারের উপরে বুলডোজার চালানো হয়েছে। দেশের মেরুদণ্ড ভেঙে দেয়া হচ্ছে। দেশ চালানোর নামে শুধুই সন্ত্রাস আর হল্লাবাজি চলছে। রাজ্য সরকারকে না জানিয়ে গায়ের জোরে রাজ্যে সিআরপিএফ নামিয়ে দিচ্ছে। প্রত্যেকটা প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করা হচ্ছে। এটা একটা সাংঘাতিক খেলা”। গত ৬ই জানুয়ারি ২০১৭ খ্রিস্টাব্দে কোলকাতা‘র টাউন হলে প্রশাসনিক বৈঠকে নোট বাতিল ইস্যুতে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এসব কথা বলেন।

 

এদিন কেন্দ্রে ‘জাতীয় সরকার’ বা ‘রাষ্ট্রপতি শাসন’ জারির দাবি জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এ ব্যাপারে রাষ্ট্রপতির হস্তক্ষেপ দাবি করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “এই ‘জাতীয় সরকার’-এর মাথায় যদি বিজেপির প্রবীণ এমপি লালকৃষ্ণ আদভানি বা রাজনাথ সিং বা অরুণ জেটলি জি কেও বসানো হয়, তাতেও তৃণমূলের কোনো আপত্তি থাকবে না”।

 

“ভুলে যান কে কোন রাজনৈতিক দল করেন, দেশের স্বার্থে সকলে একত্র হয়ে সরকার গঠন করতে হবে। দেশকে সর্বনাশের হাত থেকে বাঁচাতে প্রয়োজনে জাতীয় সরকার গঠন করা। আমরা রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদন করছি দেশটাকে বাঁচান। রাজনৈতিক বিরোধ ভুলে আমাদের উচিত কমন মিনিমাম এজেন্ডা বানিয়ে জাতীয় সরকার গঠন করা”।

 

তিনি আরও বলেন, “নোট বাতিলের ফলে গত দু’মাসে আমাদের ৫৫০০ কোটি টাকা রাজস্ব ক্ষতি হয়েছে। রাজ্যের ১.৭ কোটির বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ। চা, জুট, গয়না বিভিন্ন শিল্পে সব মিলিয়ে ৮১ লক্ষ ৫০ হাজার মানুষ কর্মহীন হয়েছেন। কৃষকরা রবি শস্য চাষ করতে পারছেন না এর ফলে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পাবে।

 

তথ্য সূত্রঃ 
http://bengalisamachar.in
http://bengali.pradesh18.com/
http://rtnbd.net/india/11130
http://www.1newsbd.com  
http://todaysangbad.com/archives/222601